Latest News
মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১ ।। ১০ই কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
Home / জাতীয় / ঝালকাঠিতে করোনায় শ্বাসকষ্টের রোগীদের অক্সিজেনসেবা দিচ্ছে স্বেচ্ছাসেবীরা

ঝালকাঠিতে করোনায় শ্বাসকষ্টের রোগীদের অক্সিজেনসেবা দিচ্ছে স্বেচ্ছাসেবীরা

কে এম সবুজ :
ঝালকাঠিতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় শ্বাসকষ্টে ভুগছেন বেশিরভাগ রোগী। এসময় অক্সিজেনের প্রয়োজনীয়তা বেড়ে গেছে। ঠিক সেই মুহূর্তে মানবতার সেবায় এগিয়ে এসেছেন ঝালকাঠির কয়েকটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। বিনামূল্যে তাঁরা অক্সিজেন সেবা দিয়ে যাচ্ছেন রোগীদের। গুরুতর রোগীর স্বজনদের ফোন পেলে অল্প সময়ের মধ্যে বাসায় অক্সিজেন সিল্ডার পৌঁছে দিচ্ছেন। এসব স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনকে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে অক্সিজেন সেবা প্রদানের আহ্বান জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডা. রতন কুমার ঢালী।
এদিকে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনকে পাঁচটি অক্সিজেন সিলিন্ডার উপহার দিয়েছেন ঝালকাঠি পৌর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. ছবির হোসেন। তিনি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ইয়ুথ একশন সোসাইটি, রক্তকণিকা ফাউন্ডেশন, হৃদয়ে ঝালকাঠি, স্বপ্নপূরণ সমাজ কল্যাণ সংস্থা ও মিনি পার্ক এলাকার স্বেচ্ছাসেবকদের অক্সিজেন সিলিন্ডার উপহার দেন। এ সংগঠনের পক্ষ থেকে করোনায় আক্রান্ত শ্বাসকষ্টে ভুগছেন যেসব রোগী, তাদের বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা প্রদান করা হচ্ছে। জরুরী প্রয়োজনে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা পেয়ে খুশি করোনায় আক্রান্ত হয়ে শ্বাসকষ্ট থেকে মুক্তি পাওয়া রোগীরা।
যুবলীগ নেতা মো. ছবির হোসেন বলেন, অক্সিজের অভাবে যেন একটি মানুষের মৃত্যু না হয়, সেই চিন্ত মাথায় রেখে পাঁচটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের হাতে অক্সিজেন সিলিন্ডার তুলে দেওয়া হয়েছে। এগুলোর সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করার অনুরোধ করেন তিনি।
এদিকে ঝালকাঠিতে ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল পরিচালিত মাল্টিপার্টি অ্যাডভোকেসি ফোরাম, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন দুরন্ত ফাউন্ডেশন, সংযোগ, নলছিটি উপজেলায় দুস্থ কল্যাণ সংস্থা (দুকস) ও শামসুননাহার ফাউন্ডেশন বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা চালু করেছে।
মাল্টিপার্টি অ্যাডভোকেসি ফোরামের সদস্য মো. মাহিদুল ইসলাম রাব্বি বলেন, ইতোমধ্যে আমাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে করোনায় শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন এমন ২০ জনকে অক্সিজেন সেবা দেওয়া হয়েছে। এ কার্যক্রম চলমান রয়েছে। যাদের সামর্থ আছে, তাদের কাছ থেকে শুধু অক্সিজেন রিফিল খরচ নেওয়া হয়। যাদের সামর্থ নেই, তাদের বিনামূল্যে দিচ্ছি।
দুরন্ত ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক তাসিন মৃধা অনিক বলেন, আমরা বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা দিয়ে যাচ্ছি, কারো প্রয়োজন হলে ফোন করলেই আমাদের সদস্যরা বাসায় পৌঁছে যাবে।
নলছিটির শামসুননাহার ফাউন্ডেশনের পরিচালক মো. শাহাদাত আলম বলেন, আমারা অক্সিজেন সিলিন্ডার শহরের স্টেশন রোডে মুনতাকিম ট্রেডার্সে রেখেছি। জরুরী প্রয়োজনে ফোন দিলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে রোগীর বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া হবে অক্সিজেন সিলিন্ডার। সম্পূর্ণ বিনামূল্যে আমরা এ সেবা দিয়ে যাচ্ছি।
হৃদয়ে ঝালকাঠি সংগঠনের অ্যাডমিন আসিব ইকবাল চঞ্চল বলেন, আমাদের কাছে অক্সিজেন সিলিন্ডার রয়েছে, এগুলো করোনা আক্রান্ত শ্বাসকষ্টের রোগীদের বাড়িতে বিনামূল্যে পৌঁছে দিচ্ছি। যাদের প্রয়োজন, শুধু ফোনে জানালেই আমরা পৌঁছে দিচ্ছি। করোনাকালে আমাদের এ সেবা কার্যক্রম অব্যহত থাকবে।
ঝালকাঠির সিভিল সার্জন ডা. রতন কুমার ঢালী বলেন, ঝালকাঠিতে কয়েকটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের পক্ষ থেকে বাড়িতে বাড়িতে অক্সিজেন সেবা দিচ্ছে, এটি ভালো। অক্সিজেন কার প্রয়োজন এটা চিকিৎসকরাই বলতে পারে। তাই আমার মতে যারাই এ সেবা দিচ্ছেন অন্তত চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে নেন। আমরা হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের সব ধরনের সেবা দিয়ে যাচ্ছি। সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমাদের জেলা এখনো করোনাকালে ভালো আছে।

জনতার কণ্ঠ 24 সংবাদ

শেখ রাসেলের জন্মদিনে শিশুদের নতুন পোশাক দিলেন ছবির হোসেন

স্টাফ রিপোর্টার : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছোট ভাই …