Latest News
সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪ ।। ২রা বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Home / জাতীয় / ত্রাণ পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে মানববন্ধনে দাঁড় করানোর অভিযোগ আ. লীগ নেতার বিরুদ্ধে

ত্রাণ পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে মানববন্ধনে দাঁড় করানোর অভিযোগ আ. লীগ নেতার বিরুদ্ধে

স্টাফ রিপোর্টার :
ত্রাণ পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে মানববন্ধনে দাঁড় করানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে ঝালকাঠির কাঁঠালিয়া উপজেলার আওড়াবুনিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন দুলালের বিরুদ্ধে।
স্থানীয় ইউপি পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি মো. কামরুজ্জান লিটন নকীব এ অভিযোগ করেন। আজ সোমবার সকালে ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন। দরিদ্র মানুষকে ভুলবুঝিয়ে রাস্তায় দাঁড় করিয়ে মানববন্ধনের নামে প্রতিপক্ষরা তাকে হয়রানি করছে বলেও সংবাদ সম্মেলনে দাবি করেন তিনি।
লিখিত বক্তব্যে ইউপি চেয়ারম্যান জানান, গত শনিবার কয়েকজন লোকনিয়ে আওড়াবুনিয়া ইউনিয়নের একটি সড়কে ত্রাণের দাবিতে মানববন্ধন করায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন দুলাল। ভুল বুঝিয়ে লোকজনকে মানববন্ধনে দাঁড় করানোয় জাহাঙ্গীরের শাস্তির দাবি করেন তিনি। যারা মানববন্ধনে অংশ নেন, তাঁরা একাধিকবার ত্রাণ পেয়েছেন। তাদের মধ্যে অনেকেই এ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত রয়েছেন। নিজের মুখেই তাঁরা স্বীকার করেছেন, জাহাঙ্গীর হোসেন ত্রাণ পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে রাস্তার পাশে দাঁড়াতে বলেন। অথচ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘ত্রাণ বঞ্চিদের মানববন্ধন’ নামে প্রচার করে প্রতিপক্ষরা।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আমি আওরাবুনিয়া ইউনিয়নের একাধিকবার নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসেবে স্বচ্ছতার সাথে দায়িত্ব পালন করছি। একটি পক্ষ কয়েকজন মানুষকে ভুল বুঝিয়ে মানববন্ধনে দাঁড় করায়। আমার প্রতিপক্ষ জাহাঙ্গীর হোসেন দুলালসহ কয়েকজন আমার ভালো কাজে ঈর্ষান্নিত হয়ে নানা ষড়যন্ত্র করে আসছে। তারা সবসময় আমাকে হেয়প্রতিপন্ন করার জন্য নাটক সাজিয়ে মিথ্যা ঘটনার জন্ম দিচ্ছে। বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে আমার ভাবমূর্তি নষ্ট করতে চেয়েছিলেন অনেকেই। আমি এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
জাঙ্গালিয়া গ্রামের আমজেদ আলী হাওলাদার বলেন, আমি করোনায় কয়েকবার ত্রাণ পাইছি। চেয়ারম্যান আমারে বাড়ি গিয়া দিয়া আসছে। রাস্তা দিয়া যাওয়ার সময় দুলাল আমাকে একটু দাঁড়াইতে বলে। এখানে দাঁড়াইলে আরো ত্রাণ পাওয়া যাইবে বলেছে সে। তখন আমি সেখানে দাঁড়াইছি। কিন্তু মানববন্ধন, না কী বন্ধন আমি এসব বুঝি নাই। আমারে ভুলবুঝাইয়া লাইনে দাঁড় করাইছে।
একই গ্রামের রুমা বেগম বলেন, আমারে বাসা থেকে ডাইক্যা নিয়া রাস্তার পাশে লাইনে দাঁড় করাইছে। আমি জানতে চাইলে, তারা বলেছে ত্রাণ পামু। পরে দেখলাম তারা মোবাইলে ছবি তোলে। তারা কোন ত্রাণ দিতে পারেনায়। কিন্তু চেয়ারম্যান সাহেব আমাদের ত্রাণ দিয়েছেন।
ইউপি চেয়ারম্যান মো. কামরুজ্জান লিটন নকীব জানান, আওড়াবুনিয়া ইউনিয়নে ৪২০০ খানা রয়েছে। এদেরকে এখন পর্যন্ত ৩৩ মেট্রিটন চাল দেওয়া হয়েছে। এছাড়া অন্যান্য সরকারি সকল সুযোগ সুবিধা এ ইউনিয়নের বাসিন্দারা ভোগ করছেন। স্বচ্ছতার সাথে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আ. সত্তার, বেতাগী ডিগ্রি কলেজের সাবেক উপাধ্যক্ষ মো. সুলতান আহম্মদ, ইউপি সদস্য অলিউর রহমান, শামিম রেজা ও বেবী বেগম। তবে অভিযোগ অস্বীকার করে আওয়ামী লীগ নেতা জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, মানববন্ধনের পেছনে আমার কোন হাত ছিল না। যারা ত্রাণ পায়নি, তারাই আয়োজন করেছে।

জনতার কণ্ঠ 24 সংবাদ

নলছিটিতে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা হত্যা মামলায় নারী ইউপি চেয়ারম্যান কারাগারে

স্টাফ রিপোর্টার : ঝালকাঠির নলছিটিতে আলোচিত স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা জিয়াউল হাসান ফুয়াদ কাজী হত্যায় জড়িত …