Latest News
শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪ ।। ১৭ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Home / আইন-আদালত / চোরের রেখে যাওয়া মোবাইল ফোনই চিনিয়ে দিল

চোরের রেখে যাওয়া মোবাইল ফোনই চিনিয়ে দিল

নলছিটি প্রতিনিধি :
সকালে ঘুম থেকে উঠে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকা না পেয়ে হতাশ ঘরের লোকজন। ঘরের মাঝামাঝি সিঁধকাটা দেখে তারা বুঝতে পারল চুরি হয়েছে। অনেক খোঁজাখুজির পরে চুরি হওয়া মালামাল পাওয়া যায়নি। তবে পাওয়া গেল চোরের রেখে যাওয়া মোবাইল ফোনটি। এতেই সব সমস্যার সমাধান হয়ে গেল। চোরের পরিচয় পেয়ে পুলিশ ধরে ফেললো চোরকে। উদ্ধার করা হয় চুরি হওয়া মালামাল। ঘটনাটি ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার পূর্ব দপদপিয়া গ্রামে।
পুলিশ জানায়, নলছিটি উপজেলার দপদপিয়া ইউনিয়নের পূর্ব দপদপিয়া গ্রামের সুমি বেগমের ঘরে শুক্রবার দিবাগত রাতে সিঁধ কেটে চোর ওঠে। চোর ওই ঘর থেকে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার ও কয়েকটি মোবাইল ফোন নিয়ে যায়। তবে ভুল করে সে নিজের মোবাইলটিই ঘরের ভেতরে রেখে যায়। আজ শনিবার সকালে ঘুম থেকে ওঠে সুমি বেগম দেখতে পান তাঁর গলার চেইনটি নেই। পরে দেখতে পান ঘরে থাকা নগদ টাকা ও অন্য স্বর্ণালংকারও নেই। অনেক খোঁজাখুজির পরে পাওয়া গেল অন্য একটি মোবাইল ফোন। সন্দেহ হয়, এটিই চোরের রেখে যাওয়া মোবাইল। তিনি খবর দেন পুলিশে। নলছিটি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মহিউদ্দিন শেখ ঘটনাস্থলে গিয়ে মোবাইল ফোনটি নিয়ে তদন্ত শুরু করেন। খুঁজে পেলেন সুমি বেগমের গ্রামেরই একটি ছেলের মোবাইল এটি। তাঁর নাম রাসেল সিকদার (২৮)। তাকে আটকের পর বেড়িয়ে আসে চুরির সব তথ্য।
এসআই মো. মহিউদ্দিন শেখ বলেন, চোরকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। তাঁর কাছ থেকে চুরি হওয়া মালামালও উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় সুমি বেগম বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন।