Latest News
বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ।। ৯ই ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
Home / জাতীয় / ঝালকাঠিতে ব্যবসায়ীর বসতঘর ভাংচুর

ঝালকাঠিতে ব্যবসায়ীর বসতঘর ভাংচুর

স্টাফ রিপোর্টার :
জমি নিয়ে বিরোধের জেরে ঝালকাঠিতে ব্যবসায়ীর বসতঘর ভাংচুর করে গুড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ঝালকাঠির জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে মামলা করেছেন ব্যবসায়ী মোজাম্মেল হক।
অভিযোগে জানা যায়, সদর উপজেলার গাভারামচন্দ্রপুর ইউনিয়নের কাচাবালিয়া গ্রামের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী মোজাম্মেল হোসেনের সঙ্গে একই এলাকার হান্নান খান ও তাঁর পরিবারের জমি নিয়ে দীর্ঘ দিনধরে বিরোধ চলছে। গত শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে হান্নান খানের নেতৃত্বে ২০/২৫ জনের একটি দল আকস্মিকভাবে মোজাম্মেলের বসতঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাক করে। হামলাকারীরা বসতঘরটি ভেঙে গুড়িয়ে দেয়। বসতঘরের ভেতরে থাকা মালামাল ও স্বর্ণালংকার লুটে নেয়। এতে বাধা দিতে গেলে মোজাম্মেলের স্ত্রী সেলিনা বেগমকে মারধর করে। হামলাকারীরা মোজাম্মেলের বসতঘরের পাশের ৪০টি বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কেটে ফেলে। এমনকি ভাঙা বসতঘরের মালামাল পুকুরের ভেতর ফেলে দিয়ে চলে যায়। এ ঘটনা থানায় মামলা করতে গেলেও পুলিশ মামলা নেয়নি বলে অভিযোগ করেন মোজাম্মেলল। পরে রবিবার ঝালকাঠির জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে মোজাম্মেল হক বাদী হয়ে সাত জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ২৫ জনকে আসামী করে একটি নালিশি মামলা দায়ের করেন।
মোজাম্মেল হক বলেন, আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তি আমরা ভোগ দখল করে আছি। প্রতিপক্ষরা আমাদের বসতঘর ভাংচুর করে গুড়িয়ে দেয়। তারা আমাদের বসতঘরের সকল মালামাল লুটে নিয়েছে। আমরা থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ নেয়নি। তাই আদালতে মামলা করেছি।
এ ব্যাপারে হান্নান খানের ভাই আতাউর রহমান বলেন, আমাদের ক্রয় করা ও ফরাজ সম্পত্তি মোজাম্মেল দখল করে আছে। বিভিন্ন সময় আমরা দখল বুঝে নিতে চাইলে, তারা বাধা দেয়। এজন্য আমরা তাকে মালামাল সরিয়ে নিতে বলেছি, কিন্তু তিনি নেননি। তাই আমরা মালামালগুলো সরিয়ে দিয়েছি। এ ঘটনায় আমরা একটি থানায় অভিযোগ দিয়েছি, তারাও একটি অভিযোগ দিয়েছে।