Latest News
বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ।। ৯ই ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
Home / জাতীয় / দুর্নীতির অভিযোগে সুবিদপুর ইউনিয়ন আ.লীগ সাধারণ সম্পাদককে বহিস্কারের দাবি

দুর্নীতির অভিযোগে সুবিদপুর ইউনিয়ন আ.লীগ সাধারণ সম্পাদককে বহিস্কারের দাবি

স্টাফ রিপোর্টার :
অনিয়ম, দুর্নীতি, অর্থ আত্মসাত ও অশালীন আচরণের অভিযোগে ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার সুবিদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল মান্নান সিকদারকে দল থেকে বহিস্কারের দাবি জানানো হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে ঝালকাঠি প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ২ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন। এর আগে গত ৭ সেপ্টেম্বর একই অভিযোগে ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যরা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রকাশ করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে। সংবাদ সম্মেলনে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বিভিন্ন ওয়ার্ডের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।পরে তাঁরা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, নলছিটি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের কাছেও এ দাবি জানিয়ে লিখিত অভিযোগ দেন।
সংবাদ সম্মেলনে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি গিয়াস উদ্দিন মাষ্টার অভিযোগ করেন, সুবিদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মান্নান সিকদার ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর ক্ষমতার অপব্যাবহার করে নানা অনিয়নম ও দুর্নীতি করে আসছেন। দলের লোকজনকে উপেক্ষা করে বিএনপি-জামায়াতের লোকদের বিভিন্ন কাজে প্রধান্য দিচ্ছেন। ইউনিয়নের বিভিন্ন প্রকল্পের কোন কাজ না করেই লাখ লাখ টাকা আত্মসাত করেন আবদুল মান্নান। তিনি স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে অবস্থান সুযোগ পেলেই হয়রানি করে আসছেন বলেও সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়। গত পাঁচ বছর ধরে তাঁর যন্ত্রণায় অতিষ্ট আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ দুর্নীতিবাজ মান্নান সিকদারকে দল থেকে বহিস্কারের দাবি জানান।
অভিযোগ অস্বাীকার করে ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল মান্নান সিকদার জানান, অনৈতিক প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় মিথ্যা তথ্য তুলে ধরে তাঁর বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। এর পেছনে অন্য কোন কারণ আছে বলেও জানান তিনি।

জনতার কণ্ঠ 24 সংবাদ

ঝালকাঠির সাংবাদিক কাজী সুমনের বাবার ইন্তেকাল

স্টাফ রিপোর্টার : ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবের সদস্য কাজী সোলায়মান সুমনের বাবা অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক কাজী গিয়াস …