Latest News
বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪ ।। ৫ই আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Home / আইন-আদালত / নলছিটিতে প্রেমিকের সামনে এক কিশোরীকে যৌনহয়রানির অভিযোগ

নলছিটিতে প্রেমিকের সামনে এক কিশোরীকে যৌনহয়রানির অভিযোগ

স্থানীয় প্রতিনিধি :
ঝালকাঠির নলছিটিতে প্রেমিকের সামনে প্রেমিকাকে যৌনহয়রানির অভিযোগ পাওয়া গেছে চার বখাটে যুবকের বিরুদ্ধে। এসময় ওই কিশোরীর ছবি তুলে মারধর করা হয়। উপজেলা পরিষদ চত্বরের মহিলা সংস্থা ভবনের সামনে মঙ্গলবার রাতে প্রেমিক যুগলকে আটক করে এ ঘটনা ঘটায় তাঁরা। বুধবার দুপুরে নির্যাতনের শিকার ওই কিশোরীর (১৪) মা বাদী হয়ে নলছিটি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ মামলার প্রধান আসামি রাকিব হাওলাদারকে (২০) গ্রেপ্তার করেছে। রাকিব শহরের মল্লিকপুর এলাকার মো. রাজ্জাক হাওলাদারের ছেলে। মামলার অন্যান্য আসামিরা হলেন শহরের খাসমহল এলাকার মো. জাফর হাওলাদারের ছেলে মো. পারভেজ, মল্লিকপুর এলাকার মৃত রতন মেকারের ছেলে মো. আরিফ এবং একই এলাকার মৃত সেরাজ হাওলাদারের ছেলে মো. রাশেদ হাওলাদার। এ মামলায় অজ্ঞাতনামা আরো দুই-তিন জনকে আসামি করা হয়েছে।
অভিযোগে জানা যায়, গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ওই কিশোরী স্থানীয় এক যুবকের সঙ্গে (প্রেমিক) নলছিটি উপজেলা পরিষদের চত্বরের মহিলা সংস্থার সামনে যায়। এসময় রাকিব ও তাঁর সঙ্গীরা ওই প্রেমিক যুগলকে আটক করে। প্রেমিককের সামনেই কিশোরীকে যৌনহয়রানি করে বখাটেরা। পরে প্রেমিক যুবক দৌঁড়ে পালিয়ে গেলে কিশোরীকে মারধরও করে বখাটেরা। এসময় মোবাইলফোনে ওই কিশোরীর ছবি তুলে রাখে তাঁরা। এ ঘটনায় ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে বুধবার দুপরের নলছিটি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ অভিযান চালিয়ে বুধবার রাতে মল্লিকপুর এলাকা থেকে মামলার প্রধান আসামী রাকিবকে গ্রেপ্তার করে।
কিশোরীর মা অভিযোগ করেন, বখাটেদের কারনে রাস্তায় মেয়েরা নির্ভয়ে বের হতে পারে না। আমার মেয়েকে আটকে নির্যাতন ও যৌনহয়রানি করা হয়েছে। পুলিশ একজনকে গ্রেপ্তার করেছে। আমি সকল আসামিকে গ্রেপ্তারের দাবি জানাচ্ছি।
নলছিটি থানার ওসি মো. সাখাওয়াত হোসেন বলেন, মামলার প্রধান আসামি রাকিব হাওলাদারকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।