Latest News
সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪ ।। ২রা বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Home / জাতীয় / নিখোঁজের ২০ দিন পর নলছিটির সুগন্ধা নদী থেকে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার

নিখোঁজের ২০ দিন পর নলছিটির সুগন্ধা নদী থেকে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার :
নিখোঁজের ২০ দিন পর ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার পূর্ব রায়াপুর গ্রামের সুগন্ধা নদী থেকে সোমবার রাতে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাঁর নাম ফারজানা আক্তার কলি (১৮)। সে বরগুনার বামনা উপজেলার উত্তর কাকচিড়া গ্রামের মো. রাসেলের স্ত্রী।
পুলিশ জানায়, কলির স্বামী মো. রাসেল ঢাকায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। গ্রামের বাড়িতে বসবাস করতেন স্ত্রী। গত ৯ এপ্রিল সন্ধ্যায় ১৪ মাস বয়সী মেয়েকে রেখে স্বামীর বাড়ি থেকে বের হয় কলি। এর পর থেকেই সে নিখোঁজ ছিল। বিভিন্ন স্থানে খুঁজেও তাকে পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় কলির স্বামী বামনা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

নিখোঁজের ২০ দিন পর ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার সুগন্ধা নদীতে ভাসমান অবস্থায় একটি বাঁশের খুঁটির সঙ্গে আটকে থাকা লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে রাতে লাশ উদ্ধার করে। নলছিটিতে একটি নেভিব্লু রঙের বোরকা পড়া নারীর লাশ উদ্ধারের খবর পেয়ে কলির বাবা সগির হোসেন মঙ্গলবার সকালে থানায় গিয়ে মেয়ের লাশ সনাক্ত করেন। তবে কি কারণে তাঁর মৃত্যু হয়েছে, এ ব্যাপারে কিছু বলতে পারছেন না কলির স্বজনরা।
বামনা উপজেলার রামনা গ্রামের বাসিন্দা কলির বাবা সগির হোসেন বলেন, স্বামীর বাড়ি থেকে বোরকা পড়ে বের হওয়ার পর তাঁর কোন সন্ধান পাচ্ছিলাম না। আত্নীয়-স্বজনদের বাড়িসহ বিভিন্ন স্থানে তাকে খুঁজেও পাইনি। পরে বামনা থানা পুলিশের কাছ থেকে বোরকা পড়া নারীর লাশ উদ্ধারের খবর পেয়ে নলছিটিতে এসে দেখি আমার মেয়ে। কিভাবে তাঁর মৃত্যু হয়েছে জানিনা। আমি চাই পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করে রহস্য বের করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবেন।
নলছিটি থানার ওসি মো. সাখাওয়াত হোসেন জানান, লাশটি বিকৃত হয়ে গেছে। লাশের ডিএনএ পরীক্ষা করে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। ময়না তদন্তের পরে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।