Latest News
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪ ।। ৪ঠা শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Home / জাতীয় / পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়াসমিনের মানবিকতা

পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়াসমিনের মানবিকতা

কে এম সবুজ :
যারা লাইনে দাঁড়িয়ে নিতে সংকোচবোধ করেন, মধ্যবিত্ত সেই পরিবারকে রাতের আঁধারে বাড়িতে বাড়িতে খাদ্যসামগ্রী পৌছে দেওয়া হয় পুলিশের পক্ষ থেকে। না খেয়ে দিন কাটছে তৃতীয় লিঙ্গ বা হিজরাদের দেওয়া হচ্ছে খাবার। বাদ যায়নি ভাসমান বেদে সম্প্রদায়ের লোকজনও। করোনা আক্রান্তদেরও খাদ্যসামগ্রী দেওয়া হয়।  এমনকি মাদক ছেড়ে আলোর পথে ফিরে আসা পরিবারগুলোকেও চাল, ডাল, আলু, তেল, লবন, সাবানসহ খাদ্যসামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম চলছে। সরকারি কোন সহায়তা নয়, ঝালকাঠি জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে এ ধরণের পাঁচশতাধিক পরিবারকে করোনাকালে খাদ্যসামগ্রী দেওয়া হয়। এখনো ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত রয়েছে। আর এ মানবিক কাজ করে যাচ্ছেন পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়াসমিন। নারী হয়েও করোনাকালে তিনি কর্মহীন মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। কখনো মায়ের , কখনো বোনের ভালবাসা দিয়ে আপন করে নিয়েছেন দরিদ্র এসব মানুষকে। অনেকের অসহায়ত্বের কথা শুনে জড়িয়ে ধরে কষ্ট নিবারণ করেছেন তিনি। করোনা পরিস্থিতিতে কেউ যেন অভুক্ত না থাকে, এমন দৃঢ় শপথ নিয়েছেন মানবিক এ পুলিশ সুপার।
পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়াসমিন বলেন, আমরা ঝালকাঠি জেলা পুলিশের অফিসারদের মধ্যে ১২০ জনের রেশন সেচ্ছায় জমা রেখেছি। এর সঙ্গে সাধ্যমত নগদ টাকা দিয়ে খাদ্যসামগ্রী কিনে, তা বিতরণ করে যাচ্ছি। এখন পর্যন্ত আমরা পাঁচশতাধিক মানুষকে খাদ্যসামগ্রী দিয়েছি। এদের মধ্যে মধ্যবিত্ত পরিবারও রয়েছে। যারা কারো কাছে চাইতে পারে না এবং লাইনে দাঁড়িয়েও খাবার নিতে পারে না। আমার কাছে অনেকে ফেসবুকে ম্যাসেজ দিয়ে অনাহারের কথা জানিয়েছেন, তাদের বাড়িতে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। অনেকে ফোন করে অসহায়ত্বের কথা জানিয়েছেন, তাদের ফিরিয়ে দেইনি।

জনতার কণ্ঠ 24 সংবাদ

নলছিটিতে চোর সন্দেহে যুবককে গণপিটুনি দিয়ে হত্যা

স্টাফ রিপোর্টার : ঝালকাঠির নলছিটিতে চোর সন্দেহে রিয়াজ ফকির (২৪) নামে এক যুবককে গণপিটুনি দিয়ে …