Latest News
বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ।। ৮ই ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
Home / জাতীয় / বৃদ্ধ নারীর ৩০ বছরের কষ্ট দূর করলেন যুবলীগ নেতা

বৃদ্ধ নারীর ৩০ বছরের কষ্ট দূর করলেন যুবলীগ নেতা

স্টাফ রিপোর্টার :
অমৃত বানু (৭০)। বয়সের ছাপ তাঁর চোখে মুখে। এ বয়সে তাঁর নিরাপদ আশ্রয়ে থাকার কথা ছিল। কিন্তু অসহায় এ নারী স্বামী মারা যাওয়ার পরে ৩০ বছর ছিলেন অন্যের বাড়িতে আশ্রিত। গৃহকর্মীর কাজ করে কখনো তিনবেলা খেয়েছেন, আবার না খেয়েও সংগ্রাম করেছেন জীবনযুদ্ধে। ঝালকাঠি সদর উপজেলার বাসন্ডা ইউনিয়নের জয়সী গ্রামের সেই অমৃত বানুকে একটি ঘর নির্মাণ করে দিয়েছেন এক যুবলীগ নেতা। ঈদে খরচ কমিয়ে তিনি এ বৃদ্ধার ঘর তুলে দেন। মেয়ে ও দুই নাতী নিয়ে ওই ঘরে বসবাসের ব্যবস্থা করে দেওয়া হচ্ছে। যুবলীগ নেতা ছবির হোসেনের মহতি উদ্যোগের কারণে শেষ জীবনে একটু মাথা গোজার ঠাঁই পেলেন এ বৃদ্ধা।
জানা যায়, অমৃত বানুর স্বজনদের কাছে তাঁর কষ্টের কথা শুনে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন ঝালকাঠি পৌর যুবলীগের যুগ্মআহবায়ক বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ছবির হোসেন। এবছর পবিত্র ঈদুল ফিতরের খরচ বাঁচিয়ে তিনি অমৃত বানুকে তিনকক্ষ বিশিষ্ট একটি টিনের ঘর তৈরি করে দেন। বুধবার সকালে অমৃত বানুর কাছে ঘরের চাবি তুলে দেন ছবির হোসেন। এসময় আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়েন অমৃত বানু। প্রাণখুলে দোয়া করেন ছবির হোসেনের জন্য। ছবির হোসেনের এমন মানবিক কাজের প্রশংসা করেছেন অনেকে।
বৃদ্ধা অমৃত বানু বলেন, মানুষের ঘরে কাজ করে সংসার চালাই। আমার সাধ্য ছিল না নিজের টাকা দিয়ে ঘর তোলার। যুবলীগ নেতা ছবির হোসেনের সহযোগিতার কারণে আমি আমার নিজের একটি ঘর হয়েছে। আমি ছবির হোসেন ও তাঁর পরিবারের জন্য দোয়া করছি। এখন বাড়ির রাস্তাটা দরকার। মরার আগে যেন শান্তিতে এই ঘরে থাকতে পারি।
ঝালকাঠি পৌর যুবলীগের যুগ্মআহবায়ক বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ছবির হোসেন বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে এ বছর ঈদের খরচ কমিয়েছি। বারতি খরচ না করে সেই টাকা দিয়ে বৃদ্ধা অমৃত বানুর জন্য একটি ঘর তুলে দিয়েছি। এতে আমি অনেক তৃপ্তি পাচ্ছি। মানুষ মানুষের জন্য। আমাদের সকলের উচিত মানুষের কল্যাণে কাজ করা।

জনতার কণ্ঠ 24 সংবাদ

হারিয়ে যাওয়া ফোন উদ্ধার করে প্রকৃত মালিকের কাছে ফিরিয়ে দিলেন পুলিশ সুপার

স্টাফ রিপোর্টার : ঝালকাঠিতে বিভিন্ন সময় হারিয়ে যাওয়া এবং চুরি হওয়া ১১টি স্মার্ট ফোন উদ্ধার …