Latest News
শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪ ।। ৭ই বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Home / জাতীয় / রাজাপুরের শীর্ষ সন্ত্রাসী শাহিন গ্রেপ্তার

রাজাপুরের শীর্ষ সন্ত্রাসী শাহিন গ্রেপ্তার

স্টাফ রিপোর্টার :
ঝালকাঠির রাজাপুরের শীর্ষ সন্ত্রাসী ও নব্য আওয়ামী লীগ নেতা শাহিন মৃধাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃস্পতিবার দুপুরে উপজেলা সদরের নিজ বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। শাহিন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও শুক্তগড় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মজিবুল হকের ছেলে। তাঁর বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।
পুলিশ জানায়, গত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের সময় উপজেলার কানুনিয়া গ্রামে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে শাহিন মৃধা ও তার বাহিনী মো. জামাল হোসেন নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে জখম করে। পরে আহত জামাল বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। সেই মামলা ও একটি অর্থ আত্মসাতের মামলায় শাহিনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয়রা জানায়, শাহিন মৃধা সাবেক আইন প্রতিমন্ত্রী ও বিএনপি নেতা শাহজাহান ওমরের মামাত ভাই। সে এক সময় বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিল। তবে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পরপরই ভোল পাল্টে যোগ দেয় আওয়ামী লীগে। পরে শাহিনের বাবা মজিবুল হক শুক্তাগড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়। এরপরই শাহিনের দিন বদলে যায়। বাবা চেয়ারম্যান হলেও মূল দায়িত্ব পালন করতেন শাহিন নিজে। মাধ্যমিকের গন্ডি পার না করেই শাহিন এক সময় সৌদি আরবে চলে যান। তবে বাবা চেয়ারম্যান হওয়ার পরে বিদেশ থেকে চলে আসে শাহিন। নিজের নামে সন্ত্রাসী বাহিনী তৈরি করে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে শাহিন ও তার বাহিনী। শাহিন বাহিনীর ভয়ে শুক্তাগড় ইউনিয়নের সাধারণ মানুষ সব আতংকে থাকতো। কারো বাড়ি বা জমির দিকে নজর পড়লে তা যেকোন উপায়ে হস্তগত করতো শাহিন। শাহিনের বিরুদ্ধে জমি দখল, অপরের সম্পত্তি আত্মসাৎ, প্রতারণা, চেক জালিয়াতিসহ বিস্তর অভিযোগ রয়েছে। এই সব অপকর্ম দলের ও নিজের বাহিনীর দাপটে এতোদিন করে আসলেও কেউ কোন প্রতিবাদ করতে পারেনি। তবে শাহিনকে গ্রেপ্তারের খবরে শুক্তাগড় ইউনিয়ন ও এর আশপাশের এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে সস্তি ফিরে এসেছে। এলাকাবাসী পুলিশকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।
রাজাপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘দুপুরে শাহিনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বিকালে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তার বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।