Latest News
বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪ ।। ১০ই শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
Home / আইন-আদালত / ঝালকাঠিতে চেক ডিসঅর্নার মামলায় এক নারীর ৮ মাসের কারাদণ্ড

ঝালকাঠিতে চেক ডিসঅর্নার মামলায় এক নারীর ৮ মাসের কারাদণ্ড

মো. শাহীন আলম :
ঝালকাঠিতে চেক ডিসঅর্নার মামলায় মোসাম্মৎ নার্গিসস নামে এক নারীকে ৮ মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ৩৯ লাখ ৬২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। আজ বুধবার দুপুরে ঝালকাঠির অতিরিক্তি জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক এসকে.এম তোফায়েল হাসান এ রায় ঘোষণা করেন। নার্গিস পলাতক থাকায় রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন না। ঠিকাদার মেসার্স সরদার এন্টারপ্রাইজের মালিক মো. শামসুল ইকরাম পিরু বাদী হয়ে এনআই অ্যাকটের ১৩৮ ধারায় এ মামলাটি দায়ের করেন। দণ্ডপ্রাপ্ত মোসাম্মৎ নার্গিস সদর উপজেলার গাভারামচন্দ্রপুর গ্রামের মেসার্স রাসেল এন্টারপ্রইজের মালিক।
মামলার বিবরণে জানাযায়, মেসার্স রাসেল এন্টারপ্রাইজের পক্ষে আসামী নার্গিসের স্বামী লুৎফর রহমান বেলালকে পাঠিয়ে শামসুল ইকরাম পিরুর ব্যাবসাপ্রতিষ্ঠান থেকে বিভিন্ন সময় ৩৯ লাখ ৬২ হাজার টাকার মালামাল কিনে নেয়। মালামাল কেনার সময় বেলাল ঠিকাদারী কাজের বিল পেয়ে টাকা পরিষোধ করার প্রতিশ্রুতি দেয়। এরপর টাকা দেওয়ার একাধিক ওয়াদা ভঙ্গ করায় শামসুল ইকরাম পিরু পাওনা টাকা পরিশোধের জন্য বেল্লালকে চাপ দেন। এক পর্যায়ে ২০১৪ সালের ২ সেপ্টম্বর বেল্লাল তাঁর স্ত্রীর ঝালকাঠি রুপালী ব্যাংক শাখার একটি চেক প্রদান করেন। ওই বছরের ১৪ সেপ্টম্বর চেক জমা দিলে ব্যাংকে তাঁর হিসাবে আসামীর টাকা না থাকায় চেক ফেরত দেওয়া হয়। এরপর ১৭ সেপ্টম্ব আসামীকে লিগ্যাল নোটিশ প্রদান করা হয়। আসামী নার্গিস ২১ সেপ্টম্বর লিগ্যাল নোটিশপ্রাপ্ত হয়ে জবাব না দেওয়ায় এই মামলা দায়ের করেন পিরু। ২৯ অক্টোবর বাদী ঝালকাঠি সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে উল্লেখিত মামলা দায়ের করেন।